★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ১০১।

বড় হৃদয়ের মানুষ হতে হবে। বীরের মতো আলগে রাখতে হবে সুন্দর ও ছোট পৃথিবীকে। নিষ্ঠুর যুদ্ধ কেড়ে নেয় আদরের সন্তান। অন্যের ধন-সম্পদ ও ধর্মের প্রতি লোভ করা যাবেনা। নিজের যতটুকু ধন-সম্পদ আছে তা নিয়েই খুশী থাকতে হবে। নিজ ধর্মের ভালোটুকু আঁকড়ে রাখতে হবে আজীবন। সৃষ্টির সেরা মানুষের হৃদয়ে বাস করে সৃষ্টিকর্তা, মানুষকে কষ্ট দিলে সৃষ্টিকর্তা …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ১০১। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ১০০।

রাত ভোর হবে, পৃথিবীতে যখন থেকে প্রাণের অস্তিত্ব মিলে তার অনেক অনেক আগে থেকেই প্রাণের অস্তিত্ব ছিল বলে ধারনা। প্রাণ হলো সৃষ্টিকর্তার অস্তিত্ব, সৃষ্টিকর্তার আশীর্বাদ। ধর্ম হলো সৃষ্টিকর্তার প্রেরিত সংবিধান, পাপ মুক্ত থাকা, ভালো থাকার নির্দেশনা, সর্বত্র ভালবাসা ও ক্ষমা প্রচার করা। ধর্ম শিক্ষা হলো, শান্তি শিক্ষা দেওয়া, কোনো মানুষের হৃদয়ে ধর্ম বিদ্বেষ না থাকা। …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ১০০। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৯।

স্বপ্ন বাতাসে ভেসে বেড়ায়, ডানা মেলে দূর দূরান্তে, নিলীমায়, গ্রহে, অজানা গ্রহে, নতুন আর একটি সৌরজগতে। আশা ও বসে নেই, জাল বুনে বুনে বিস্তার স্বপ্নের সকল রাজ্যে। আশাই জগত, জীবন, সংসার, আশা ও স্বপ্ন মিলেই সুখী সমৃদ্ধ মানব জাতি, মানব সম্পদ। নিরাশা ও দুঃস্বপ্নের বেড়াজালে ভণ্ড-ধর্মীয়নেতা, জঙ্গি, সন্ত্রাসী, উগ্রবাদীরা পৃথিবীর জন্য যা ইচ্ছা করে যাচ্ছে। …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৯। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৮।

বীজ বাতাসে ছড়ায়, ভারী বীজ সরাসরি গাছের নীচে মাটিতে পরে, হালকা বীজ উড়ে উড়ে অনেক দূরে কংক্রিটের উপর পরে। ছায়া দানকারী বিশাল বট গাছের জন্ম, খুব ছোট একটি বীজ থেকে। একজন শিক্ষিত মা, একটি শিক্ষিত জাতি উপহার দেয়। শিক্ষিত জাতি, সভ্য জাতি পৃথিবীর নেতৃত্বদান করে। নেতৃত্ব নির্ধারিত হয় সৃষ্টিকর্তার তরফ থেকে। পৃথিবী পাপে জর্জরিত হলে, …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৮। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৭।

২০১৭ সবার জন্য সাফল্যমণ্ডিত হলে দোষের কি? কেমন যাবে ২০১৭। শুভ নববর্ষ ২০১৭। শুভ হোক এবং শুভ হবে ২০১৭। মানুষ নতুনত্বের সন্ধানী, নতুন নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে ভালবাসেন। কষ্টে অর্জিত সাফল্যই প্রকৃত সাফল্য। কষ্ট সবসময়ই জীবনে শুভফল বয়ে আনে। অঙ্গীকার করি, শান্তির জন্য সবাই কষ্ট করতে প্রস্তুত থাকবো। ভণ্ড-ধর্মীয়নেতা, জঙ্গি, সন্ত্রাসী, উগ্রবাদীদের মানুষের মায়ামমতায় জড়াবো। …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৭। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৬।

ফুলের সাথে পবিত্র কথাটি অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত। ফুলের মতো পবিত্র, মানুষের জীবন ফুলের মতো পবিত্র। ফুলের আত্মকাহিনীর সাথে মানুষের আত্মকাহিনীর হুবহু মিল আছে। বিকশিত ও প্রস্থান ফুলের মতো হলে জীবন নিঃসন্দেহে স্বার্থক হয়। পবিএ যাকিছু আছে ফুলের সাথে তুলনা করা হয়। মা, মাটি, মানুষ, মাতৃভূমি ফুলের মতো পবিত্র। শিশু ও ফুল একটু বেশিই পবিত্র। ভণ্ড-ধর্মীয়নেতা, জঙ্গি, …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৬। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৫।

পাপে জর্জরিত হওয়া যাবে না। ভালো গাছে ভালো ফল হয়, সুমিষ্ট ফল, মিষ্টি মিষ্টি গন্ধও ছড়ায়। সংগীতের সুরও মিষ্টি হয়, বাতাস দিয়ে সুর সৃষ্টি হয়। সবকিছুতেই বাতাসের অস্তিত্ব, মরণ ব্যাধিও সংক্রমিত হয় বাতাস দিয়ে। বাতাসের অভাবে আমরা লাশ হই, ভণ্ড-ধর্মীয়নেতা,জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ, উগ্রবাদের শিকার হয়েও আমরা লাশ হই। লাশের গন্ধে বাতাস ভারি হয়, শোকে বাতাস ভারি …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৫। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৪।

ঔষধ মানুষকে সম্পূর্ণ সুস্থ রাখতে পারে না। প্রকৃতি মামুষকে পরিপূর্ণ সুস্থ রাখতে পারে। প্রকৃতি মানুষের পরম বন্ধু। প্রকৃতি থেকে আমরা উত্তম শিক্ষা গ্রহণ করি। প্রকৃতির শিক্ষাই মানব জীবনের প্রকৃত শিক্ষা। মৌমাছি ফুল থেকে শুধু মধু সংগ্রহ করে, বিষ রেখে আসে। মানুষের মাঝে কেহকেহ পরনিন্দা পছন্দ করে। তবে সৎমানুষ দ্বারা কারো ক্ষতি হয় না। সৎব্যক্তিই প্রকৃত …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৪। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৩।

হায় রে ভজনালয়,তোমার মিনারে চড়িয়া ভণ্ড গাহে স্বার্থের জয় !———————মানুষ—————————— বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম ভণ্ড-ধর্মীয়নেতা নিজেও জানে না জঙ্গি, সন্ত্রাসী, উগ্রবাদী জন্ম দেওয়া কতটুকু সঠিক। ধর্মকে পণ্য করে পৃথিবীতে টিকে থাকা কঠিন। বাজারদর খুবই মন্দা, আঘাত খেতে হয় সজোরে। পাপ কাজ থেকে বিরত থাকতে হবে। ধর্মের বাণী বিকৃত করা যাবে না। বিকৃত উপস্থাপনা পৃথিবীর …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯৩। Read More »

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯২।

মানুষের দ্বারা যাহা অসম্ভব, সৃষ্টিকর্তার কাছে তাহা সম্ভব। সৃষ্টির শুরু থেকেই নেগেটিভ শক্তি ছিল, আছে, থাকবে চিরকাল। প্রকৃত-ধর্মীয়নেতা ও শান্তিকামীরা সৃষ্টিকর্তার শক্তির সাধক, সকল ধর্মের মূলবাণী–” শান্তির “—প্রচারক, ধারক। পাঁচশত কোটি বছরের পুরাতন পৃথিবীর আবর্জনা পরিষ্কার করতে একশত বছরের কমসময় লাগবে। পরিকল্পিত নতুন পৃথিবী গড়ার শপথ নিতে হবে। আন্দোলন শরু করতে হবে, সাহায্য নিতে হবে …

★★★ সাহসী উচ্চারণ বাংলাদেশ ★★★ ৯২। Read More »